ব্রেকিং:
বিয়ে বাড়িতে আত্মঘাতী বোমা বিস্ফোরণ! বঙ্গবন্ধু হত্যাকাণ্ড তদন্তে কমিশন গঠনের দাবি তথ্যমন্ত্রীর চামড়া সংরক্ষণ যথাযথভাবে করা হয়েছে: শিল্প সচিব ‘এখনো ষড়যন্ত্র চলছে, বাতাসে চক্রান্তের গন্ধ’ ‘চিকিৎসকদের উচ্চশিক্ষার জন্য বিদেশে পাঠানো হবে’
  • বৃহস্পতিবার   ২১ অক্টোবর ২০২১ ||

  • কার্তিক ৬ ১৪২৮

  • || ১৫ রবিউল আউয়াল ১৪৪৩

দৈনিক কিশোরগঞ্জ

প্রধানমন্ত্রীর অর্থনৈতিক প্রণোদনা প্যাকেজ সময়োপযোগী: জিএম কাদের

নিউজ ডেস্ক

প্রকাশিত: ৬ এপ্রিল ২০২০  

জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান ও বিরোধীদলীয় উপনেতা জিএম কাদের এমপি বলেছেন, করোনাভাইরাস মহামারী আকারে ছড়িয়ে পড়ার কারণে বিশ্বব্যাপী মহামন্দার আশংকা দেখা দিয়েছে। তার প্রভাব কিছুটা হলেও বাংলাদেশের ওপর পড়তে শুরু করেছে। এ জন্য প্রধানমন্ত্রী ৭২ হাজার ৭৫০ কোটি টাকার একটি প্রণোদনা প্যাকেজ ঘোষণা করেছেন। আমরা এই ঘোষণাকে অত্যন্ত সময়োপযোগী মনে করছি।

রোববার গণমাধ্যমে দেয়া এক বিবৃতিতে জিএম কাদের এ সব কথা বলেন। তিনি বলেন, ব্যবসা-বাণিজ্যসহ বিভিন্ন সেক্টরে মানুষ ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছেন। স্বল্প সুদের এই ঋণ অত্যন্ত কার্যকর হিসেবে বিবেচিত হবে। এ ছাড়া বেসরকারি ব্যাংকগুলোও এই ঋণ কার্যক্রমে অংশ নিতে পারবে। তিনি এ উদ্যোগকে সাধুবাদ জানিয়ে বলেন, আমাদের দেশে কল্যাণমুখী কর্মসূচি বাস্তবায়নে জটিলতা দেখা দেয়। তাই দ্রুত সময়ে অর্থনৈতিক প্রণোদনা প্যাকেজ বাস্তবায়নে সুনির্দিষ্ট নীতিমালা প্রণয়নের দাবি জানাই।

বিবৃতিতে জাতীয় পার্টি চেয়ারম্যান আরও বলেন, ব্যাংক ঋণ দেয়ার সময় নানা ধরনের জটিলতা সৃষ্টি হতে পারে। যেমন সুশাসন না থাকার কারণে যার ঋণ পাওয়ার কথা সে পাচ্ছে না। অথবা যে সময়ে পাওয়ার প্রয়োজন সে সময়ে পাচ্ছে না। তাই ব্যাংকগুলোতে সুশাসন নিশ্চিত করতে হবে।

তিনি বলেন, আমরা বিশ্বাস করি এবার এ বিষয়গুলোতে দৃষ্টি দেয়া হবে। সঠিকভাবে ঋণ বিতরণ করা হবে এবং যাতে ঋণ কাজে লাগে সেইভাবেই বিতরণ করা হবে।

তিনি প্রধানমন্ত্রীর বক্তৃতা কথা উল্লেখ করে বলেন, সুযোগ-সুবিধা যেন অপব্যবহার করা না হয়। যথাযথ মনিটরিংয়ের ব্যবস্থা নিশ্চিতের দাবিও জানিয়েছেন জাতীয় পার্টি চেয়ারম্যান। এই প্রণোদনা প্যাকেজ যাতে কার্যকরভাবে বাস্তবায়িত হয় সে জন্য সংশ্লিষ্ট সবাইকে আন্তরিকভাবে কাজ করতে আহ্বান জানান তিনি।