ব্রেকিং:
বিয়ে বাড়িতে আত্মঘাতী বোমা বিস্ফোরণ! বঙ্গবন্ধু হত্যাকাণ্ড তদন্তে কমিশন গঠনের দাবি তথ্যমন্ত্রীর চামড়া সংরক্ষণ যথাযথভাবে করা হয়েছে: শিল্প সচিব ‘এখনো ষড়যন্ত্র চলছে, বাতাসে চক্রান্তের গন্ধ’ ‘চিকিৎসকদের উচ্চশিক্ষার জন্য বিদেশে পাঠানো হবে’
  • শুক্রবার   ১০ জুলাই ২০২০ ||

  • আষাঢ় ২৬ ১৪২৭

  • || ১৯ জ্বিলকদ ১৪৪১

দৈনিক কিশোরগঞ্জ
৮১

হাতের মুঠোর জোরেই শনাক্ত হবে ডায়াবেটিস!

নিউজ ডেস্ক

প্রকাশিত: ৯ এপ্রিল ২০২০  

আপনার হাতের মুঠোয় কতটুকু জোর রয়েছে তা থেকেই নির্ণয় করা যাবে ডায়াবেটিস। হাতের মুষ্ঠির স্বাভাবিক শক্তি পরিমাপ করে তার বিপরীতে তুলনামূলক পরীক্ষা চালিয়ে সুস্থ মানুষের টাইপ টু ডায়াবেটিসের ঝুঁকির মাত্রা পরিমাপ করা যেতে পারে।
‘আমেরিকান জার্নাল অব প্রিভেন্টিভ মেডিসিন’ শীর্ষক জার্নালে প্রকাশিত এক গবেষণায় এমনই তথ্য জানা গেছে। নিশ্চয় ভাবছেন ডায়াবেটিসের সঙ্গে শক্তির কি সম্পর্ক? কারণ টাইপ টু ডায়াবেটিসের সঙ্গে পেশি দুর্বল হয়ে যাওয়ার সম্পর্ক রয়েছে।

ওকল্যান্ড বিশ্ববিদ্যালয়ের পাবলিক অ্যান্ড এনভাইরনমেন্টাল ওয়েলনেস বিভাগের অধ্যাপক ও গবেষক এলিস সি ব্রাউন বলেন, প্রাথমিক পর্যায়েই ডায়াবেটিস শনাক্ত করা দিনকে দিন আরো বেশি জরুরি হয়ে উঠছে। এমনটা করতে পারলেই ডায়াবেটিসের কারণে রক্তনালীর যে ক্ষতি হয় তা এড়ানো সম্ভব।

নতুন এই গবেষণায় মানুষের শরীরের ওজন, লিঙ্গ ও বয়স অনুযায়ী তাদের হাতের মুষ্ঠির স্বাভাবিক জোর শনাক্ত করা হয়। এদের মধ্যে সবারই আগে উচ্চ রক্তচাপের সমস্যা ধরা পড়েছিল। স্বাস্থ্যবান নারী-পুরুষের মাঝে ডায়াবেটিসের কারণে হাতের মুষ্ঠির জোর কতটুকু কমবেশি হয় তা নির্ণয় করেছে গবেষণাটি। 

হাতের মুষ্ঠির জোর ঠিক কোন পর্যায়ে গেলে তাকে ডায়াবেটিসের ঝুঁকি বিবেচনা করা হবে? এটি নির্ণয় করতে শরীরের ওজনের অনুপাতে আদর্শ হাতের মুষ্ঠির জোর পর্যবেক্ষণ করা হয়। ৫০ থেকে ৮০ বছর বয়সী নারীদের ক্ষেত্রে ঝুঁকিপূর্ণ মাত্রা হলো শূন্য দশমিক ৪৯ এর নিচে।

এর মানে হল একজন ৬০ বছর বয়সী নারীর ডান ও বাম হাতের সমন্বিত হাতের মুষ্ঠির জোর যদি ৪৩ কেজি হয় এবং তার ওজন যদি হয় ৯০ কেজি তবে তার আদর্শ হাতের মুষ্ঠির জোর হবে শূন্য দশমিক ৪৭৮। যেহেতু এই মান শূন্য দশমিক ৪৯ এর নিচে তাই ওই নারীর মাত্রা ইঙ্গিত করে যে তিনি ডায়বেটিসের উচ্চ ঝুঁকিতে আছেন।

ডা. ব্রাউন বলেন, এই পদ্ধতির খরচ কম, প্রশিক্ষণ দেয়া জটিল নয় এবং পরীক্ষাটি করতে সময়ও প্রয়োজন হয় কম। তাই গবেষণার এই পদ্ধতিটি ডায়াবেটিস নির্ণয়ের রুটিন চেক-আপের অংশ হতে পারে। এতে রোগ নির্ণয় এবং তার প্রতিরোধ দুটোই সহজ হবে।

স্বাস্থ্য বিভাগের পাঠকপ্রিয় খবর