ব্রেকিং:
বিয়ে বাড়িতে আত্মঘাতী বোমা বিস্ফোরণ! বঙ্গবন্ধু হত্যাকাণ্ড তদন্তে কমিশন গঠনের দাবি তথ্যমন্ত্রীর চামড়া সংরক্ষণ যথাযথভাবে করা হয়েছে: শিল্প সচিব ‘এখনো ষড়যন্ত্র চলছে, বাতাসে চক্রান্তের গন্ধ’ ‘চিকিৎসকদের উচ্চশিক্ষার জন্য বিদেশে পাঠানো হবে’
  • মঙ্গলবার   ১১ আগস্ট ২০২০ ||

  • শ্রাবণ ২৬ ১৪২৭

  • || ২১ জ্বিলহজ্জ ১৪৪১

দৈনিক কিশোরগঞ্জ
৬৮

সংলাপ

শেষ হলো ১৪ দল-ঐক্যফ্রন্টের দ্বিতীয় দফা সংলাপ

নিউজ ডেস্ক

প্রকাশিত: ৭ নভেম্বর ২০১৮  

আসন্ন জাতীয় সংসদ নির্বাচন সামনে রেখে ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগের নেতৃত্বাধীন ১৪ দলের সঙ্গে বিএনপিসহ পাঁচটি রাজনৈতিক দলের মোর্চা সংগঠন জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের নেতাদের মধ্যে দ্বিতীয় দফা সংলাপ শেষ হয়েছে। সংলাপ শেষে প্রধানমন্ত্রীর সরকারি বাসভবন গণভবনে থেকে নেতারা বেরিয়ে আসেন।

নির্বাচন সামনে রেখে বিভিন্ন রাজনৈতিক দলের সঙ্গে যে ধারাবাহিক সংলাপ শুরু হয়েছিল, তার মধ্যে শুধু জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের সঙ্গেই দ্বিতীয় দফায় সংলাপ হয় ক্ষমতাসীনদের।

বুধবার (৭ নভেম্বর) সকাল ১১টা থেকে এই সংলাপ শুরু হয়, শেষ হয় দুপুর ৩টার কিছু পরে। বৈঠকটি রুদ্ধদ্বার হয়।

এতে ১০ সদস্যের উপদেষ্টা পরিষদ গঠনের প্রস্তাব দিয়েছেন জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের আহ্বায়ক ও গণফোরাম সভাপতি ড. কামাল হোসেন। এ ছাড়া নির্বাচন কমিশন পুনর্গঠন ও বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার মুক্তির প্রস্তাব দিয়েছেন তিনি।

ড. কামালের লিখিত এসব প্রস্তাবের বিষয়ে আওয়ামী লীগের বিভিন্ন নেতা তাদের বক্তব্য দিয়েছেন। তারা বলেছেন, সংবিধানের আলোকেই আগামী নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। এ সংবিধানের বাইরে আপনি এসব প্রস্তাব করছেন কেন?

একই সঙ্গে যে উপদেষ্টা পরিষদ গঠন করার কথা বলা হয়েছে, সে নির্দলীয় উপদেষ্টা পরিষদের উপদেষ্টা কারা থাকবেন- এ সদস্যদের নাম বলতে পারেননি প্রস্তাবকারীরা। এর আগে বৈঠকের সূচনা বক্তব্যে সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে ঐক্যফ্রন্টের মঙ্গলবারের সমাবেশ সুন্দরভাবে আয়োজন করায় আয়োজকদের ধন্যবাদ দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

সংলাপে অংশ নিতে বেইলি রোডের বাসা থেকে বুধবার সাড়ে ১০টার পর গণভবনে পৌঁছান ড. কামাল হোসেনসহ ঐক্যফ্রন্টের নেতৃবৃন্দ।

আজকের সংলাপে ১৪-দলীয় জোটের প্রতিনিধিদলে যে ১১ জন ছিলেন, তারা হলেন- আমির হোসেন আমু, তোফায়েল আহমেদ, শেখ সেলিম, মতিয়া চৌধুরী, ওবায়দুল কাদের, অ্যাডভোকেট আনিসুল হক, অ্যাডভোকেট ইউসুফ হোসেন হুমায়ুন, স ম রেজাউল করিম, হাসানুল হক ইনু ও রাশেদ খান মেনন।

তাদের নেতৃত্বে ছিলেন প্রধানমন্ত্রী ও আওয়ামী লীগ সভাপতি শেখ হাসিনা।

এদিকে জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের ১১ সদস্য প্রতিনিধিদলের নেতৃত্ব দেন ড. কামাল হোসেন।

প্রতিনিধিদলের অন্য সদস্যরা হলেন- বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর, স্থায়ী কমিটির সদস্য খন্দকার মোশাররফ হোসেন ও মওদুদ আহমদ, জাসদের (জেএসডি) সভাপতি আ স ম রব ও সাধারণ সম্পাদক আবদুল মালেক রতন, গণফোরামের নির্বাহী সভাপতি সুব্রত চৌধুরী, সাধারণ সম্পাদক মোস্তফা মহসীন মন্টু, নাগরিক ঐক্যের আহ্বায়ক মাহমুদুর রহমান মান্না ও এসএম আকরাম এবং সুলতান মোহাম্মদ মনসুর।