ব্রেকিং:
বিয়ে বাড়িতে আত্মঘাতী বোমা বিস্ফোরণ! বঙ্গবন্ধু হত্যাকাণ্ড তদন্তে কমিশন গঠনের দাবি তথ্যমন্ত্রীর চামড়া সংরক্ষণ যথাযথভাবে করা হয়েছে: শিল্প সচিব ‘এখনো ষড়যন্ত্র চলছে, বাতাসে চক্রান্তের গন্ধ’ ‘চিকিৎসকদের উচ্চশিক্ষার জন্য বিদেশে পাঠানো হবে’

সোমবার   ২০ জানুয়ারি ২০২০   মাঘ ৬ ১৪২৬   ২৪ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪১

৩৮

শীতের শুরুতেই লেপ কম্বল বের করছেন? যত্ন নেয়ার উপায় জানুন

নিউজ ডেস্ক

প্রকাশিত: ১৪ ডিসেম্বর ২০১৯  

কনকনে ঠান্ডায় লেপ বা কম্বলের মধ্যে গুটিসুটি হয়ে ঘুমানোর আরামের সঙ্গে অন্য কিছুর তুলনাই হয়না। তবে আগের বছর ব্যবহারের পর হয়তো লেপ কম্বলগুলো উঠিয়ে রাখা হয়েছিল। আবার এবারের ব্যবহারের পর আবার ঠিকভাবে পরিষ্কার করে রাখতে হবে!

দীর্ঘদিন লেপ কম্বল ব্যবহারের পরও নতুন রাখতে কীভাবে এগুলোর যত্ন নিবেন জানেন কি? অনেক সময় সঠিক পরিচর্যার অভাবে খুব তাড়াতাড়িই এগুলো পুরনো হয়ে যায়। জেনে নিন কীভাবে এগুলো দীর্ঘদিন নতুন রাখবেন?   
       
লেপের যত্ন  

লেপ যদি শিমুল তুলার হয়ে থাকে। তাহলে ধোয়া তো দূরের কথা, ড্রাই ওয়াশও করা যাবে না। এক্ষেত্রে লেপ রোদে দিন। ব্যবহারের শুরুতে এবং উঠিয়ে রাখার আগে ভালোভাবে উল্টে পাল্টে রোদ দিয়ে রাখুন। এতে অনেক বছর পর্যন্ত লেপ ভালো থাকবে।  

কম্বলের যত্ন 

কম্বল লেপের মতোই রোদ দিয়ে রাখতে হয়। তবে কম্বল পানি দিয়ে ধোয়া যায়। আবার ড্রাই ওয়াশও করা যায়। পানির সঙ্গে প্রয়োজন মতো শ্যাম্পুতে মিশিয়ে অল্প কিছুক্ষণ ভিজিয়ে রেখে ধুয়ে ফেলুন। এরপর রোদে শুকিয়ে নিন। ঝামেলা এড়াতে লন্ড্রিতেও দিতে পারেন।  

কাঁথার যত্ন

শীতে কাঁথা ব্যবহারের আগে সেগুলো ডিটারজেন্ট দিয়ে ধুয়ে নিন। এমনিতে কাঁথা শীত ছাড়াও সারাবছরই ব্যবহার করা হয়। সাধারণ যে ডিটারজেন্ট ব্যবহার করেন তাতেই ডুবিয়ে রাখুন কিছুক্ষণ। তারপর কেচে রোদে শুকিয়ে তা ব্যবহার করুন। 
লেপ-কম্বলের যত্ন

সোয়েটার, মাফলারের যত্ন  

উলের তৈরি যেকোনো গরম কাপড় বাড়িতেই কেচে ফেলুন। একটানা তিন থেকে চার দিন একই জিনিস ব্যবহার করবেন না। বিশেষ করে একটানা একই উলের জিনিস ব্যবহার করলে ত্বকে নানা ধরনের অ্যালার্জি হয়। তাই এসবের প্রতি যত্নবান হোন। শীতবস্ত্র কাচার জন্য বিশেষ ডিটারজেন্ট বাজারে পাওয়া যায়। সেসব ব্যবহার করে ঠাণ্ডা পানিতে ধুয়ে ফেলুন। ধোয়ার সময় পানিতে লেবুর রস বা ভিনেগার দিয়ে দিতে পারেন। এতে রং ঠিক থাকবে।  

কাচার পর খুব বেশি কড়া রোদে দেবেন না উলের জামা-কাপড়। বরং রোদের তেজ কম পৌঁছায় এমন জায়গাতেই এগুলো শুকাতে দিন। এতে রং নষ্ট হবার ভয় থাকে না। তবে লেদার জ্যাকেটের ক্ষেত্রে বাড়িতে না কেচে পেশাদার কোনো লন্ড্রিতে দিন। 

জ্যাকেটের যত্ন

লেদারের কাপড় বাড়িতে পরিষ্কার না করে লন্ড্রিতে দিন। এগুলো কখনই রোদে দেয়া উচিত নয়। তবে ফোমের জ্যাকেট ডিটারজেন্ট দিয়ে ধুয়ে নিতে পারেন।   

দৈনিক কিশোরগঞ্জ
দৈনিক কিশোরগঞ্জ