ব্রেকিং:
বিয়ে বাড়িতে আত্মঘাতী বোমা বিস্ফোরণ! বঙ্গবন্ধু হত্যাকাণ্ড তদন্তে কমিশন গঠনের দাবি তথ্যমন্ত্রীর চামড়া সংরক্ষণ যথাযথভাবে করা হয়েছে: শিল্প সচিব ‘এখনো ষড়যন্ত্র চলছে, বাতাসে চক্রান্তের গন্ধ’ ‘চিকিৎসকদের উচ্চশিক্ষার জন্য বিদেশে পাঠানো হবে’
  • মঙ্গলবার   ২৬ জানুয়ারি ২০২১ ||

  • মাঘ ১৩ ১৪২৭

  • || ১৩ জমাদিউস সানি ১৪৪২

দৈনিক কিশোরগঞ্জ

ব্যাংকে লেনদেনে আনা হচ্ছে করাকরি অবস্থান

নিউজ ডেস্ক

প্রকাশিত: ৩ সেপ্টেম্বর ২০১৯  

 

ব্যাংকিং চ্যানেলে অর্থ পাচার বন্ধে লেনদেনে কড়াকড়ি আরোপ করেছে বাংলাদেশ ব্যাংক। এর অংশ হিসাবে ব্যাংক অ্যাকাউন্ট ও এলসি খোলার ক্ষেত্রে নজরদারি বাড়ানো হয়েছে। যাতে বেনামি হিসাব খোলা না যায় সেজন্য ব্যাংকগুলোকে সতর্ক করেছে কেন্দ্রীয় ব্যাংক। সম্প্রতি পণ্য আমদানির নামে অর্থ পাচারের ঘটনা ধরা পড়ার পর থেকে এলসি খোলার আগে গ্রাহকের প্রতিষ্ঠানের অস্তিত্ব সম্পর্কে যাচাই-বাছাই করা হচ্ছে। সংশ্লিষ্ট সূত্র থেকে এসব তথ্য পাওয়া গেছে। সূত্র জানায়, ব্যাংকিং চ্যানেলে বা ব্যাংকের বাইরে হুন্ডির মাধ্যমেও অর্থ পাচারের ঘটনা ধরা পড়েছে। মিথ্যা ঘোষণা দিয়েও পণ্য আমদানির নামে অর্থ পাচার হচ্ছে। হুন্ডিসহ নানাভাবে অর্থ পাচার বন্ধে সতর্ক রয়েছে কেন্দ্রীয় ব্যাংক, বাংলাদেশ আর্থিক গোয়েন্দা ইউনিট, জাতীয় রাজস্ব বোর্ডসহ (এনবিআর) বিভিন্ন আইন প্রয়োগকারী সংস্থা। এছাড়া অতিরিক্তি অর্থায়নের মাধ্যমেও অর্থ পাচারের সুযোগ সৃষ্টি হয়। সেটি বন্ধ করার উদ্যোগ গ্রহণ করা হয়েছে। নতুন ঋণ বিতরণে সম্পদের মান যাচাই, পণ্য অতি মূল্যায়িত হয়েছে কিনা এসব দেখা হচ্ছে। সব মিলিয়ে মনিটরিং বাড়ানো হয়েছে। এদিকে ব্যাংকের মাধ্যমে অর্থ পাচারের তথ্য জানতে সরকারি ব্যাংকগুলোতে বিশেষ অডিট শুরু হয়েছে। জানা গেছে, ব্যাংকের মাধ্যমে বা ব্যাংকের বাইরে থেকে কারা কিভাবে মুদ্রা পাচার করছে সেসব বিষয় খতিয়ে দেখা হচ্ছে। ইতিমধ্যে এ ধরনের বড় কয়েকটি ঘটনা ধরা পড়েছে। এগুলোর কৌশল সম্পর্কে নিশ্চিত হয়ে তা রোধে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়া হচ্ছে। ব্যাংকে নতুন হিসাব খুলতে গেলে এখন গ্রাহকের তথ্য যাচাইয়ে বেশি গুরুত্ব দেয়া হচ্ছে। এজন্য জাতীয় পরিচয়পত্র, আয়কর শনাক্তকরণ নম্বর, ভ্যাট নিবন্ধন নম্বরসহ নানা ধরনের কাগজপত্র দিতে হয়। ব্যাংক গ্রাহক সম্পর্কে নিশ্চিত না হতে পারলে হিসাব খুলছে না।