ব্রেকিং:
বিয়ে বাড়িতে আত্মঘাতী বোমা বিস্ফোরণ! বঙ্গবন্ধু হত্যাকাণ্ড তদন্তে কমিশন গঠনের দাবি তথ্যমন্ত্রীর চামড়া সংরক্ষণ যথাযথভাবে করা হয়েছে: শিল্প সচিব ‘এখনো ষড়যন্ত্র চলছে, বাতাসে চক্রান্তের গন্ধ’ ‘চিকিৎসকদের উচ্চশিক্ষার জন্য বিদেশে পাঠানো হবে’
  • বুধবার   ১২ আগস্ট ২০২০ ||

  • শ্রাবণ ২৭ ১৪২৭

  • || ২২ জ্বিলহজ্জ ১৪৪১

দৈনিক কিশোরগঞ্জ
৫৫

বিশ্বব্যাপী করোনা আতঙ্ক, এবার সচেতনতার বার্তা দিলো ছোট্ট ‘মীনা’

অনলাইন নিউজ

প্রকাশিত: ২৪ মার্চ ২০২০  

মীনা কার্টুনের কথা মনে আছে নিশ্চয়! সামাজিক বিভিন্ন সমস্যার সমাধানে মীনার ছিল একনিষ্ঠ ভূমিকা। নারী পুরুষের সমঅধিকার, বাল্যবিয়ে রোধ, সবার জন্য শিক্ষা, শিশুশ্রম কিংবা না ব্যাধি থেকে সমাজকে রক্ষা করার মাধ্যমেই মীনা চরিত্রটি জনপ্রিয়তা অর্জন করে। 

মনে আছে কি? মিনা দৈত্যের কাছে তার নিজের তিনটি ইচ্ছার কথা জানিয়েছিল সেগুলো সম্পর্কে? তার ইচ্ছার মধ্যে একটি ছিল, ‘আমার ইচ্ছা সবাই সাবান বা ছাঁই দিয়া হাত ধুইব’। এখন নিশ্চয়ই মনে পড়ছে করোনাভাইরাসের প্রাদুর্ভাব রুখতে কিন্তু আমরা সেই সাবান দিয়েই নিয়মিত হাত ধুচ্ছি। 

পুরো বিশ্ব যখন করোনা ভাইরাসের ভয়ে আতঙ্কিত, ঠিক তখনই সচেতনতার বার্তা নিয়ে ফের হাজির ছোট্ট মীনা। নতুন মিনা কার্টুনটির চিত্রনাট্যে দেখা যায়, ভাইরাসে আক্রান্ত রাজুসহ গ্রামের অনেকেই। চিন্তিত মীনা তখন প্রতিরোধের উপায় খোঁজে শিক্ষিকার দেয়া বইয়ে। একসময় সে স্বপ্নে হঠাৎই বইয়ের পাতা থেকে হারিয়ে যায় জীবাণুদের রাজ্যে। জানতে পারে, প্রাণঘাতী এক ভাইরাস ধেয়ে আসছে তাদেরই গ্রামে।

ঠিক তখনই বন্ধুদেরকে সঙ্গে নিয়ে গ্রামবাসীকে সচেতন করে মিনা এবং জয়ী হয় তারা জীবাণুর বিরুদ্ধে লড়াইয়ে। কার্টুনে নানা নাটকীয়তার মধ্য দিয়ে খুব সহজেই ফুটিয়ে তোলা হয়েছে রোগ থেকে বাঁচার সতর্কতা। ইউনিসেফের জনপ্রিয় শিশুতোষ অ্যানিমেশন মীনা এই পর্বে শিক্ষা দিয়েছে, কিভাবে ঐক্যবদ্ধ প্রচেষ্টায় নিজের পাশাপাশি সবাইকেই রক্ষা করা যায় করোনা ভাইরাস থেকে।

ইউনিসেফ বাংলাদেশের কমিউনিকেশন ম্যানেজার শাকিল ফাইজুল্লাহ এ বিষয়ে বলেছেন, ২০১১ সালে তৈরি করা মীনার এই কার্টুনটি যেটা আমরা আবার সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে দিয়েছি। এখনকার পরিস্থিতিতে এটা খুবই উপযোগী কারণ এর মাধ্যমে তুলে ধরা হয়েছে শিশুরা এবং বড়রা কীভাবে হাত ধোয়ার মাধ্যমে নিজেদেরকে নিরাপদ রাখতে পারে।

ইত্যাদি বিভাগের পাঠকপ্রিয় খবর