ব্রেকিং:
বিয়ে বাড়িতে আত্মঘাতী বোমা বিস্ফোরণ! বঙ্গবন্ধু হত্যাকাণ্ড তদন্তে কমিশন গঠনের দাবি তথ্যমন্ত্রীর চামড়া সংরক্ষণ যথাযথভাবে করা হয়েছে: শিল্প সচিব ‘এখনো ষড়যন্ত্র চলছে, বাতাসে চক্রান্তের গন্ধ’ ‘চিকিৎসকদের উচ্চশিক্ষার জন্য বিদেশে পাঠানো হবে’
  • শনিবার   ২৯ ফেব্রুয়ারি ২০২০ ||

  • ফাল্গুন ১৬ ১৪২৬

  • || ০৫ রজব ১৪৪১

৩৫২

কিশোরগঞ্জ-২

বদলে গেছে দৃশ্যপট

নিউজ ডেস্ক

প্রকাশিত: ৭ ডিসেম্বর ২০১৮  

স্পটলাইট এখন কিশোরগঞ্জ-২ (কটিয়াদী-পাকুন্দিয়া) আসনকে ঘিরে। আপিলে বিএনপি প্রার্থী মেজর (অব.) আখতারুজ্জামান রঞ্জন প্রার্থিতা ফিরে পাওয়ায় বদলে গেছে দৃশ্যপট। জমে উঠেছে ভোটের খেলা। আওয়ামী লীগের হেভিওয়েট প্রার্থী সাবেক আইজিপি, রাষ্ট্রদূত ও সচিব নূর মোহাম্মদকে এখন লড়তে হবে জটিল ভোটযুদ্ধে।

কিশোরগঞ্জ-২ (কটিয়াদী-পাকুন্দিয়া) আসনে মোট ১০ প্রার্থী মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছিলেন। তাঁদের মধ্যে বিএনপি প্রার্থী মেজর (অব.) মো. আখতারুজ্জামান রঞ্জনসহ সাত প্রার্থীর মনোনয়নপত্র বাতিল এবং আওয়ামী লীগ প্রার্থী সাবেক আইজিপি, রাষ্ট্রদূত ও সচিব নূর মোহাম্মদসহ তিন প্রার্থীর মনোনয়নপত্র বৈধ ঘোষণা করেছিলেন রিটার্নিং অফিসার ও জেলা প্রশাসক মো. সারোয়ার মুর্শেদ চৌধুরী।

রিটার্নিং অফিসার কর্তৃক মনোননয়নপত্র বাতিল ঘোষিতের তালিকায় অন্যরা হলেন, বাংলাদেশের কমিউনিস্ট পার্টির প্রার্থী নূরুল ইসলাম, জাতীয় পার্টির প্রার্থী এরশাদ হোসাইন, জাতীয় সমাজতান্ত্রিক দল (জেএসডি) প্রার্থৗ মো. লুৎফুর রহমান, বাংলাদেশ মুসলিম লীগ (বিএমএল) প্রার্থী মীর আবু তৈয়ব মো. রেজাউল করিম, ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ প্রার্থী মো. সালাউদ্দিন রুবেল এবং স্বতন্ত্র মো. আনিসুজ্জামান খোকন।

বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের প্রার্থী সাবেক আইজিপি, রাষ্ট্রদূত ও সচিব নূর মোহাম্মদ, বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দল (বিএনপি) প্রার্থী জেলা বিএনপির যুগ্মসাধারণ সম্পাদক মো. শহীদুজ্জামান কাকন এবং জাকের পার্টি প্রার্থী দলের জাকের পার্টির স্থায়ী কমিটির সদস্য মো. আব্দুল জব্বার এই তিন প্রার্থীর মনোনয়নপত্র বৈধ ঘোষণা করা হয়।

মেজর (অব.) আখতারুজ্জামান রঞ্জনের মনোনয়নপত্র বাতিল হয়ে যাওয়ায় আওয়ামী লীগ প্রার্থী সাবেক আইজিপি, রাষ্ট্রদূত ও সচিব নূর মোহাম্মদের সহজে নির্বাচনী বৈতরণী পার হওয়ার সম্ভাবনা প্রবল হয়ে ওঠে। যে কারণে উৎফুল্ল ছিলেন তাঁর কর্মী-সমর্থকরা।

এর বিপরীতে প্রার্থিতা বাতিল হওয়া বিএনপি প্রার্থী মেজর (অব.) আখতারুজ্জামান রঞ্জনের সমর্থক গোষ্ঠীর মাঝে বিরাজ করে ক্ষোভ ও হতাশা। ভোটারদের মাঝেও শুরু হয় নানা হিসাব-নিকাশ।

এ রকম পরিস্থিতিতে বৃহস্পতিবার (৬ ডিসেম্বর) সকালে নির্বাচন কমিশন মেজর (অব.) আখতারুজ্জামান রঞ্জনের আপিলের প্রেক্ষিতে তাঁর প্রার্থিতা বহালের ঘোষণা প্রদান করে। ফলে নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতার জন্য দলীয় চূড়ান্ত ছাড়পত্র পাওয়া ছাড়া আর কোন বাধা রইল না আলোচিত ও হেভিওয়েট প্রার্থী মেজর (অব.) আখতারুজ্জামান রঞ্জনের।

আর এ ঘোষণার পর পরই বদলে গেছে দৃশ্যপট। প্রার্থিতা বহালের আদেশের খবরটি ছড়িয়ে পড়ার পর মেজর (অব.) আখতারুজ্জামান রঞ্জনের সমর্থক-শুভানূধ্যায়ী ছাড়াও বিএনপি নেতাকর্মীদের মাঝে স্বস্তি ফিরে এসেছে।

এ পরিস্থিতিতে কটিয়াদী ও পাকুন্দিয়া উপজেলার প্রত্যন্ত গ্রাম থেকে শুরু করে রাস্তাঘাট, বাজার, চায়ের স্টল সর্বত্র আলোচনার অন্যতম প্রধান বিষয় হয়ে ওঠেছে- সংসদ নির্বাচন। আওয়ামী লীগ ও বিএনপির হেভীওয়েট দুই প্রার্থীর ভালো-মন্দের বিচার বিশ্লেষণ ও ভোটের হিসাব নিয়ে চলছে নানা আলোচনা-সমালোচনা।

দুই প্রার্থী ও তাঁদের কর্মী-সমর্থকরাও গা-ঝাড়া দিয়ে ওঠেছেন। নানামুখী তৎপরতায় মাঠের লড়াইয়ের জন্য প্রস্তুত হচ্ছেন তারা। আওয়ামী লীগের হেভিওয়েট প্রার্থী সাবেক আইজিপি, রাষ্ট্রদূত ও সচিব নূর মোহাম্মদের বিরুদ্ধে ভোটযুদ্ধের নানামুখী সমীকরণ মাথায় রেখে মেজর (অব.) আখতারুজ্জামান রঞ্জনের সমর্থকরা প্রস্তুতি নিচ্ছেন নির্বাচনী প্রচার-প্রচারণার।

দৈনিক কিশোরগঞ্জ
দৈনিক কিশোরগঞ্জ
কিশোরগঞ্জ বিভাগের পাঠকপ্রিয় খবর