ব্রেকিং:
বিয়ে বাড়িতে আত্মঘাতী বোমা বিস্ফোরণ! বঙ্গবন্ধু হত্যাকাণ্ড তদন্তে কমিশন গঠনের দাবি তথ্যমন্ত্রীর চামড়া সংরক্ষণ যথাযথভাবে করা হয়েছে: শিল্প সচিব ‘এখনো ষড়যন্ত্র চলছে, বাতাসে চক্রান্তের গন্ধ’ ‘চিকিৎসকদের উচ্চশিক্ষার জন্য বিদেশে পাঠানো হবে’
  • সোমবার   ০৬ এপ্রিল ২০২০ ||

  • চৈত্র ২৩ ১৪২৬

  • || ১২ শা'বান ১৪৪১

৩০

জাহাজের মেঝেতে ১৭ দিন বেঁচে ছিল করোনা!

অনলাইন ডেস্ক

প্রকাশিত: ২৬ মার্চ ২০২০  

মহামারী করোনার ভয়াল তাণ্ডবে বিপর্যস্ত বিশ্ব। এখন পর্যন্ত এই ভাইরাসের কোনও প্রতিষেধক পাওয়া যায়নি। এখনো বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থাসহ বিভিন্ন দেশের চিকিৎসা বিজ্ঞানীরা এই ভাইরাস নিয়ে গবেষণা চালিয়ে যাচ্ছেন। নতুন গবেষণায় দেখা গেছে, ধাতবে ১৭ পর্যন্ত বেঁচে তাকে করোনাভাইরাস। 

জানা গেছে, যাত্রীবাহী একটি জাহাজের ধাতব মেঝেতে ১৭ দিন পরেও করোনাভাইরাসের উপস্থিতি ছিল। করোনাভাইরাসে আক্রান্ত ব্যক্তি যে কেবিনে ছিলেন, তিনি সেখান থেকে বের হয়ে যাওয়ার ১৭ দিন পর পরীক্ষা করে এটি দেখা গেছে। যাত্রীবাহী ঐ জাহাজের নাম ডায়মন্ড প্রিন্সেস।

গবেষকরা জানিয়েছেন, পরীক্ষার জন্য কেবিনটি জীবাণুনাশক না করে রেখে দেওয়া হয়েছিল। তবে ঠিক কিভাবে এতো দীর্ঘ সময় বেঁচে থাকতে পারে ভাইরাসটি, তা উদঘাটন করতে পারেননি গবেষকরা। বিষয়টি জানার পর থেকেই গবেষকদের কপালে চিন্তার ভাঁজ দেখা দিয়েছে।
 
মার্কিন গবেষক এবং সেন্টার ফর ডিজিস অ্যান্ড কন্ট্রোল প্রিভেনশনের প্রধান ডা. টম প্রিডেন বলেন, মশা যেমন ম্যালেরিয়া ছড়ায়, এঁটেল পোকা রোগ ছড়ায়, তেমনি জাহাজে এটি ছড়িয়ে গেছে। কিন্তু কিভাবে এটি ছড়াল, তা এখনো জানা যায়নি।
উল্লেখ্য, এদিকে ডায়মন্ড প্রিন্সেস এবং গ্র্যান্ড প্রিন্সেস যাত্রীবাহী জাহাজে আট শতাধিক মানুষ করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন। তার মধ্যে অন্তত ১০ জন মারা গেছেন। জানা গেছে, আক্রান্ত হিসেবে শনাক্ত হওয়া ১৭.৯ শতাংশের শরীরে কোনো ধরনের লক্ষণ প্রকাশ পায়নি।

দৈনিক কিশোরগঞ্জ
দৈনিক কিশোরগঞ্জ
আন্তর্জাতিক বিভাগের পাঠকপ্রিয় খবর