ব্রেকিং:
বিয়ে বাড়িতে আত্মঘাতী বোমা বিস্ফোরণ! বঙ্গবন্ধু হত্যাকাণ্ড তদন্তে কমিশন গঠনের দাবি তথ্যমন্ত্রীর চামড়া সংরক্ষণ যথাযথভাবে করা হয়েছে: শিল্প সচিব ‘এখনো ষড়যন্ত্র চলছে, বাতাসে চক্রান্তের গন্ধ’ ‘চিকিৎসকদের উচ্চশিক্ষার জন্য বিদেশে পাঠানো হবে’
  • শনিবার   ৩০ মে ২০২০ ||

  • জ্যৈষ্ঠ ১৬ ১৪২৭

  • || ০৮ শাওয়াল ১৪৪১

দৈনিক কিশোরগঞ্জ
৫২

ঘোরাঘুরি-চায়ের দোকানে আড্ডা, ১৩ জনকে জরিমানা

নিজস্ব ডেস্ক

প্রকাশিত: ২ এপ্রিল ২০২০  

কিশোরগঞ্জের ভৈরবে সরকারি নির্দেশনা বাস্তবায়নে এবং সামাজিক দূরত্ব নিশ্চিত করতে সাঁড়াশি অভিযানে মাঠে নেমেছে উপজেলা প্রশাসন।

শহরের অলি-গলি ও সড়কে বিনা কারণে ঘোরাঘুরি এবং উপজেলার বিভিন্ন ইউপির পাড়া-মহল্লার চায়ের দোকানে বসে আড্ডা দেয়ার অপরাধে ২৪ হাজার ৫০০ টাকা জরিমানা করছে ভ্রাম্যমাণ আদালত।

বুধবার দিনে ও রাতে অভিযান চালিয়ে এ জরিমানা আদায় করা হয়।

লোকজন সরকারের নির্দেশনা অমান্য করে বিভিন্ন ব্যবসা প্রতিষ্ঠান খুলে বসে। এছাড়া বিনা কারণে মানুষজন সড়কে ঘোরাঘুরি করতে দেখে ভ্রাম্যমাণ আদালত। এ সময় শহরের গাছতলা ঘাট, মেঘনা ফেরিঘাট, নদীর পাড়, কাঠপট্টি, ঋষিপট্টিতে রাতে অভিযান চালিয়ে আটজনকে সাত হাজার টাকা জরিমানা করে ভ্রাম্যমাণ আদালতের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ও ইউএনও লুবনা ফারজানা। 

এর আগে দুপুরের দিকে ভৈরব বাজারে মাসুম নামে এক ব্যবসায়ীকে দুই হাজার টাকা, হলুদ পট্টির আরেক ব্যবসায়ী প্রশান্তকে পাঁচ হাজার এবং ভৈরবপুর উত্তপাড়ায় সুজন নামে আরো একজনকে এক হাজার টাকা জরিমানা করে ভ্রাম্যমাণ আদালতের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ও উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) হিমাদ্রী খিসা। 

এছাড়া তিনি উপজেলার কালিকাপ্রসাদে অভিযান চালিয়ে আজিম নামে একজনকে ৫০০ টাকা এবং শ্রীনগর নতুন বাজারে চা দোকানি সোহেল তিন হাজার টাকা জরিমানা করা হয়। অভিযানে সহযোগিতা করেন ভৈরব সার্কেলের এএসপি রেজুয়ান দিপু ও ভৈরব থানার ওসি মোহাম্মদ শাহীনসহ আইন শৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যরা।

এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন ভ্রাম্যমাণ আদালতের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ও ইউএনও লুবনা ফারজানা। 

তিনি আরো জানান, সারা বিশ্বে ছড়িয়ে পড়া করোনাভাইরাসের মহামারি থেকে উপজেলাবাসীকে বাঁচাতে আমরা বারবার মানুষজনকে সর্তক ও সচেতন হতে বলছি। জরুরি প্রয়োজন ছাড়া বাসা থেকে বের না হতে বলছি। জনসমাগম নিষিদ্ধ করা হয়েছে। জরুরি সেবাদানের সঙ্গে জড়িত হাসপাতাল এবং ওষুধের ফার্মেসিসহ নিত্যপণ্যের দোকান ব্যতিত সব ব্যবসা প্রতিষ্ঠান বন্ধ রাখার নির্দেশনা রয়েছে। কিন্তু বিষয়টি তারা এড়িয়ে চলছেন। ফলে সরকারি নির্দেশনা অমান্য করায় এবং সামাজিক দূরত্ব না মেনে চলায় সাঁড়াশি অভিযানে নেমেছে উপজেলা প্রশাসন। এ অভিযান অব্যাহত থাকবে।