ব্রেকিং:
বিয়ে বাড়িতে আত্মঘাতী বোমা বিস্ফোরণ! বঙ্গবন্ধু হত্যাকাণ্ড তদন্তে কমিশন গঠনের দাবি তথ্যমন্ত্রীর চামড়া সংরক্ষণ যথাযথভাবে করা হয়েছে: শিল্প সচিব ‘এখনো ষড়যন্ত্র চলছে, বাতাসে চক্রান্তের গন্ধ’ ‘চিকিৎসকদের উচ্চশিক্ষার জন্য বিদেশে পাঠানো হবে’
  • মঙ্গলবার   ১৪ জুলাই ২০২০ ||

  • আষাঢ় ২৯ ১৪২৭

  • || ২৩ জ্বিলকদ ১৪৪১

দৈনিক কিশোরগঞ্জ
৫৮

গরিব-দুঃখীর সেবা করতে মাইক্রোসফট ছাড়লেন বিল গেটস

অনলাইন ডেস্ক

প্রকাশিত: ১৪ মার্চ ২০২০  

বিল গেটস, নামটিই তো বিশেষণ! তার নামের সঙ্গে অন্যকিছু যোগ করার প্রয়োজন হয় না। ছোটকাল থেকেই ছিলেন প্রোগ্রামিং দুনিয়ার জিনিয়াস। বর্তমান বিশ্বের ১ বিলিয়নেরও বেশি মানুষ ব্যবহার করে তার তৈরি অপারেটিং সিস্টেম। একটু একটু করে তার গড়ে তোলা প্রতিষ্ঠান মাইক্রোসফট এখন বিশ্বব্যাপী জনপ্রিয়। অথচ তিনিই শুক্রবার কোম্পানিটির বোর্ড থেকে পদত্যাগ করেছেন।

গত এক দশক ধরেই বিল গেটসকে সবচেয়ে ধনী ব্যক্তি হিসেবে চেনে বিশ্ব। ২০০৮ সালের শুরুতে মাইক্রোসফটের বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ দায়িত্ব থেকে নিজেকে সরিয়ে নিতে শুরু করেন তিনি। এবার একেবারেই নিজেকে আলাদা করে নিয়েছেন। দরিদ্র দেশগুলোতে চিকিৎসার অভাবে প্রচুর মানুষ মারা যায়। তাই তিনি বৈশ্বিক স্বাস্থ্য কাজ করার পদক্ষেপ নিয়েছেন। এছাড়া উন্নয়ন, শিক্ষা এবং জলবায়ু পরিবর্তন ঠেকানোর কাজে আরো বেশি সময় দেয়ার চেষ্টা করবেন।

বিল গেটসের পদত্যাগ প্রসঙ্গে মাইক্রোসফটের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা সত্য নাদেলা বলেন, বছরের পর বছর ধরে বিল গেটসের সঙ্গে কাজ করতে পারাটা এক বিরাট সম্মান সুযোগ। তার কাছ থেকে অনেক কিছু শিখেছি।

ধনকুবের বিল গেটস এবং তার স্ত্রী মেলিন্ডা গেটস বিশ্বের সর্ববৃহৎ দাতব্য সংস্থা গেটস ফাউন্ডেশন পরিচালনা করছেন। এ ফাউন্ডেশনের কোটি কোটি ডলারের সম্পদ রয়েছে। পৃথিবীর দরিদ্র দেশগুলোর উন্নয়নে কাজ করছেন দুজন। দুহাত ভরে দান করছেন হাজার-হাজার কোটি টাকা, লড়ছেন রোগ ও দারিদ্র্যের বিরুদ্ধে।

২০১৪ সাল পর্যন্ত মাইক্রোসফট এর বোর্ড চেয়ারম্যান হিসাবে দায়িত্ব পালন করেন বিল গেটস। এরপর গত চার বছর ধরে কেবল বোর্ড মেম্বার ছিলেন। কিন্তু শুক্রবার তিনি সেই দায়িত্ব থেকেও সরে গেলেন।

বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিভাগের পাঠকপ্রিয় খবর