ব্রেকিং:
বিয়ে বাড়িতে আত্মঘাতী বোমা বিস্ফোরণ! বঙ্গবন্ধু হত্যাকাণ্ড তদন্তে কমিশন গঠনের দাবি তথ্যমন্ত্রীর চামড়া সংরক্ষণ যথাযথভাবে করা হয়েছে: শিল্প সচিব ‘এখনো ষড়যন্ত্র চলছে, বাতাসে চক্রান্তের গন্ধ’ ‘চিকিৎসকদের উচ্চশিক্ষার জন্য বিদেশে পাঠানো হবে’
  • বৃহস্পতিবার   ১৬ জুলাই ২০২০ ||

  • শ্রাবণ ১ ১৪২৭

  • || ২৫ জ্বিলকদ ১৪৪১

দৈনিক কিশোরগঞ্জ
৪৬

‘আগে মানুষ বাঁচুক, পরে চিকিৎসা হবে’

অনলাইন ডেস্ক

প্রকাশিত: ২ এপ্রিল ২০২০  

নাটোরের বাগাতিপাড়ার পৌর এলাকা রেলগেটের বাসিন্দা শিরিন আক্তার আট বছর ধরে বিভিন্ন অসুখে ভুগছেন। অনেক কষ্টে আয় করে তা থেকে জমিয়ে ভারতে চিকিৎসা নেন তিনি। এবারও তিনি টাকা জমিয়েছিলেন ভারতে গিয়ে চিকিৎসার জন্য। এরই মধ্যে দেশে করোনাভাইরাসের সংক্রমণ দেখা দিয়েছে। ফলে সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখতে মানুষকে ঘরে থাকার নির্দেশ দিয়েছে সরকার। আর করোনাভাইরাস মোকাবেলার ‘যুদ্ধে’ ঘরে থাকতে গিয়ে নিম্ন আয়ের শ্রমজীবীরা কর্মহীন হয়ে পড়েছে। তাদের দুর্দশা আলোড়িত করে শিরিন ও তাঁর স্বামীকে। তাই চিকিৎসার জন্য জমানো সব টাকা দিয়ে এসব মানুষের পাশে দাঁড়িয়েছেন তাঁরা। তাঁরা বাজার থেকে পাঁচ কেজি করে চাল ছাড়াও আলু, সবজি, তেল, সাবান কিনে বাড়ি বাড়ি গিয়ে দরিদ্র পরিবারের হাতে তুলে দিচ্ছেন।

শিরিন আক্তার আনসার ভিডিপির পৌর ওয়ার্ড লিডার। তাঁর স্বামী জিয়াউর রহমান পেশায় ঠিকাদারের সহযোগী। তাঁরা জানান, তাঁদের নিজেদের জমি নেই। তাই রেলের জমিতে ঘর নির্মাণ করে থাকছেন। তাঁদের দুই সন্তান পড়াশোনা করছে। সহায়তার বিষয়ে শিরিন আক্তার বলেন, ‘মানবতা সবার আগে, এরপর অন্য কিছু। আগে মানুষ বাঁচুক, পরে চিকিৎসা হবে। নিজেরা পেট পুরে খেয়ে শান্তিতে থাকব আর অসহায় মানুষেরা না খেয়ে কষ্ট করবে, তা হয় না।’

করোনাভাইরাস পরিস্থিতিতে ঘরবন্দি ও কর্মহীন হয়ে পড়া মানুষজনকে সরকার খাদ্যসহ অন্যান্য সহায়তা তো দিচ্ছেই, শিরিনদের মতো বিভিন্ন ব্যক্তি ও সংগঠনও তাদের পাশে দাঁড়িয়েছে।

পাবনার ভাঙ্গুড়ায় মঙ্গলবার রাতে এক হাজার ৭০টি দরিদ্র পরিবারকে খাদ্যদ্রব্য দিয়েছেন পৌরসভার মেয়র গোলাম হাসনাইন রাসেল। কয়েকজন সংস্কৃতিকর্মী মেয়রকে এ খাদ্যদ্রব্য দিতে আর্থিক সহযোগিতা করেন। গতকাল রাজশাহী মহানগরীর নিম্ন আয়ের এক হাজার পরিবারের বাড়ি বাড়ি খাদ্যসামগ্রী ও সাবান পৌঁছে দেন সিটি করপোরেশনের মেয়র ও মহানগর আওয়ামী লীগ সভাপতি এ এইচ এম খায়রুজ্জামান লিটন। মাগুরা পৌরসভার প্রায় ১০ হাজার কর্মহীন দরিদ্র পরিবারে খ্যদ্যসামগ্রী বিতরণের উদ্যোগ নিয়েছেন মাগুরা-১ আসনের সংসদ সদস্য সাইফুজ্জামান শিখর। গতকাল তিনি বেশ কিছু পরিবারের মাঝে খাদ্য বিতরণ করেন। পরে এক হাজার ৩০০টি পরিবারে এমপির খাদ্য পৌঁছে দেন স্বেচ্ছসেবকরা। ঠাকুরগাঁও জেলা মোটর পরিবহন শ্রমিক ইউনিয়নের পক্ষ থেকে সংগঠনের জেলা কার্যালয়ে গতকাল এক হাজার শ্রমিকের মাঝে চাল, ডাল, আলু, সাবান ইত্যাদি বিতরণ করা হয়েছে।

কুড়িগ্রামে জেলা প্রশাসন ও সাংবাদিকদের সঙ্গে গতকাল সকালে সার্কিটহাউস হলরুমে সেনাবাহিনীর কর্মকর্তাদের এক মতবিনিময়সভা অনুষ্ঠিত হয়। পরে সেনাদলটি কেন্দ্রীয় বাস টার্মিনাল ও শহরের ত্রিমোহনী এলাকায় শতাধিক দুস্থ ব্যক্তির মাঝে চাল, ডাল, আলু, লবণ ও তেল বিতরণ করে। নাটোর জেলা পরিষদের পক্ষ থেকে গতকাল করোনাভাইরাস পরিস্থিতিতে ক্ষতিগ্রস্ত ৯০০ দরিদ্র ও কর্মহীনের মাঝে খাদ্য ও সাবান বিতরণ করা হয়েছে। এদিকে গতকাল জেলা প্রশাসক মো. শাহরিয়াজ সদর উপজেলার মাহেশা আশ্রয়ণ প্রকল্পে ১৭০টি পরিবারের হাতে খাদ্য ও অন্য সামগ্রী তুলে দেন। ঝিনাইদহের কালীগঞ্জের আনন্দবাগ গ্রামের ৩২টি পরিবারের মাঝে চাল, ডাল, আলুসহ নিত্যপণ্য বিতরণ করা হয়েছে। গতকাল আনন্দবাগ গ্রামবাসীর আয়োজনে এসব পণ্য বিতরণ করা হয়।

রাজশাহীর বাঘায় নিম্ন আয়ের মানুষের বাড়ি বাড়ি গিয়ে মাস্ক বিতরণের পর গতকাল ১০ কেজি চাল, এক কেজি ডাল ও দুই কেজি আলুর প্যাকেট দিয়েছেন স্থানীয় এমপি ও পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী শাহরিয়ার আলম। বাঘার আড়ানী পৌর আওয়ামী লীগের সভাপতি শহীদুজ্জামান শাহীদ নিজস্ব অর্থায়নে গতকাল শতাধিক অসহায় ও দুস্থ ভ্যানচালককে খাদ্যসামগ্রী দিয়েছেন। অন্যদিকে বাঘা থানার সব কর্মকর্তার সহযোগিতায় অসহায়দের হাতে চাল, ডাল তুলে দিয়েছেন থানার ওসি নজরুল ইসলাম।

নিম্নবিত্ত রিকশা-ভ্যানচালকদের খাদ্য সহায়তা দিচ্ছে গাইবান্ধার গোবিন্দগঞ্জ হাইওয়ে থানার পুলিশ। গতকাল রিকশা-ভ্যানচালকদের মধ্যে চাল, ডাল, আলু, তেল, লবণ, সাবান ও মাস্ক বিতরণ করেন হাইওয়ে থানার বগুড়া রিজিয়নের পুলিশ সুপার শহিদ উল্লাহ। ঘরবন্দি দুস্থ ও শ্রমজীবী মানুষের জন্য ত্রাণ পাঠিয়েছেন পঞ্চগড়-১ আসনের এমপি মজাহারুল হক প্রধান। গতকাল বিভিন্ন এলাকায় প্রথম দফায় চাল, ডাল, আলু, লবণ, তেল ও সাবানের এক হাজার ২০০ প্যাকেট পাঠানো হয়। টাঙ্গাইলের দেলদুয়ার উপজেলায় চার যুবক নিজ উদ্যোগে কর্মহীন মানুষের বাড়ি বাড়ি গিয়ে খাদ্যসামগ্রী, সাবান ও মাস্ক বিতরণ করেছেন। তাঁরা হলেন স্থানীয় মজিবর হোসেন, মেম্বার শাহীন, সজিব মিয়া ও শাহীন ভুইয়া।

করোনাভাইরাস সংক্রমণ রোধে ঘরে থাকা ৯০০ দরিদ্র মানুষের হাতে গোপালগঞ্জ-২ আসনের সংসদ সদস্য শেখ ফজলুল করিম সেলিমের পক্ষে খাদ্য সহায়তা তুলে দিলেন গোপালগঞ্জের দুই নেতা। জেলা পরিষদের প্যানেল চেয়ারম্যান যুবলীগ নেতা শেখ সাহাবুদ্দিন হিটু ও সদর উপজেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক সাইফুল ইসলাম এসব খাদ্যসামগ্রী বিতরণ করেন। গোপালগঞ্জে গতকাল সাংবাদিক ও চিকিৎসকদের ৫০টি পিপিই ও হ্যান্ড গ্লাভস দিয়েছেন বিশিষ্ট ব্যবসায়ী ও আওয়ামী লীগ নেতা বাবুল আক্তার বাবলা। অন্যদিকে কোটালীপাড়ার ইউএনও এস এম মাহফুজুর রহমান ৫০০ চা বিক্রেতা, ভ্যানচালককে সরকারি খাদ্য সহায়তা দেন।

প্রায় ৪০০ মানুষের পাশে খাদ্যসামগ্রী নিয়ে সহায়তার হাত বাড়ালেন বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য ও সাবেক সংসদ সদস্য মো. আব্দুর রহমান। গতকাল তাঁর পক্ষে ফরিদপুরের মধুখালী উপজেলার ভাইস চেয়ারম্যান মুরাদুজ্জামান ও পৌরসভার মেয়র মোরশেদ রহমান লিমন মধুখালীতে চাল, ডাল, আটা, আলু, মাস্ক বিতরণ করেন।

খাগড়াছড়ির গরিব-অসহায় মানুষের সহায়তায় এগিয়ে এসেছেন জেলা আওয়ামী লীগ ও সহযোগী সংগঠনের নেতাকর্মীরা। কয়েক দিনে তাঁরা ২০ লাখ টাকার বেশি দিয়েছেন। বরগুনার বামনা উপজেলা ছাত্রলীগের নেতারা গতকাল শহরে খেটে খাওয়া মানুষের মাঝে খাদ্যসামগ্রী বিতরণ করেন। ময়মনসিংহের গফরগাঁওয়ের লংগাইর ইউপির চেয়ারম্যান আব্দুল্লাহ আল আমিন বিপ্লব কয়েক দিনে নিজ তহবিল থেকে ৭০০ কর্মহীন পরিবারকে চাল, আলু, ডাল, পেঁয়াজ, সাবান ও প্যারাসিটামল ট্যাবলেট দেন।

মুন্সীগঞ্জে গতকাল আরো ৭৯২ পরিবারের মাঝে সরকারি ত্রাণ বিতরণ করা হয়েছে। এদিকে পারটেক্স গ্রুপের আর্থিক সহযোগিতায় জেলা পুলিশের আয়োজনে লৌহজংয়ে এক হাজার বেদে পরিবারের মাঝে খাদ্যদ্রব্য বিতরণ করেছে উত্তরণ ফাউন্ডেশন। মঙ্গলবার রাতে নারায়ণগঞ্জের সিদ্ধিরগঞ্জে প্রায় ৮০ জন অসহায়, প্রতিবন্ধীর মাঝে খাদ্যদ্রব্য তুলে দেন সিদ্ধিরগঞ্জ থানার ওসি কামরুল ফারুক। ময়মনসিংহ নগরে গতকাল দুই শতাধিক বস্তিবাসীর মাঝে খাদ্যদ্রব্য বিতরণ করেছেন ময়মনসিংহ রেঞ্জ ডিআইজি হারুন অর রশিদ। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নির্বাচনী এলাকা টুঙ্গিপাড়া-কোটালীপাড়ায় খেটে খাওয়া ১০ হাজার পরিবারের মধ্যে খাদ্যদ্রব্য বিতরণ শুরু হয়েছে। বাগেরহাট-২ আসনের এমপি শেখ হেলাল উদ্দিনের উদ্যোগে গতকাল টুঙ্গিপাড়ায় এ কার্যক্রম শুরু হয়। ঢাকার সাভারে মঙ্গলবার রাতে পাঁচ হাজারের বেশি খেটে খাওয়া, অসহায়ের মাঝে খাদ্য বিতরণ করে প্রশাসন। কুমিল্লা উত্তর জেলা বিএনপির সভাপতি মঞ্জুরুল আহসান মুন্সীর অর্থায়নে প্রায় দুই হাজার পরিবারের মাঝে খাদ্য ও নাঙ্গলকোটের বাঙ্গড্ডা ইউপি চেয়ারম্যান শাহজাহান মজুমদার ৪০০ পরিবারের মাঝে খাদ্য ও জীবাণুনাশক বিতরণ করেন।

এ ছাড়া ঝালকাঠি, রাজবাড়ী, কিশোরগঞ্জ, হবিগঞ্জ, লালমনিরহাট, নীলফামারী, নওগাঁ, ঢাকার ধামরাই, পাবনার চাটমোহর, সুনামগঞ্জ, মৌলভীবাজারের কমলগঞ্জ ও কুলাউড়া, নেত্রকোনার দুর্গাপুর, মুন্সীগঞ্জ, কুমিল্লা, চট্টগ্রাম, মাদারীপুরের শিবচর, দিনাজপুরের হিলি, ময়মনসিংহের হালুয়াঘাট, কুড়িগ্রামের ভূরুঙ্গামারী, পটুয়াখালীর কলাপাড়া, চট্টগ্রামের মিরসরাই, সিরাজগঞ্জের উল্লাপাড়াসহ বিভিন্ন জেলা-উপজেলায় সরকারি প্রশাসন এবং ব্যক্তি ও সংগঠনের উদ্যোগে দরিদ্রদের মাঝে খাদ্য ও অন্যান্য সহায়তা বিতরণ করা হয়েছে।

ইত্যাদি বিভাগের পাঠকপ্রিয় খবর