ব্রেকিং:
বিয়ে বাড়িতে আত্মঘাতী বোমা বিস্ফোরণ! বঙ্গবন্ধু হত্যাকাণ্ড তদন্তে কমিশন গঠনের দাবি তথ্যমন্ত্রীর চামড়া সংরক্ষণ যথাযথভাবে করা হয়েছে: শিল্প সচিব ‘এখনো ষড়যন্ত্র চলছে, বাতাসে চক্রান্তের গন্ধ’ ‘চিকিৎসকদের উচ্চশিক্ষার জন্য বিদেশে পাঠানো হবে’

সোমবার   ২০ জানুয়ারি ২০২০   মাঘ ৬ ১৪২৬   ২৪ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪১

৪৪

অদম্য ইসমাইল সচিব হতে চান

নিউজ ডেস্ক

প্রকাশিত: ১৪ ডিসেম্বর ২০১৯  

জন্মের পর থেকেই দুই পা বিকল। তাই বাবা-মায়ের চিন্তার রেশ যেনো আর গেলো না। ভাবনায় পড়ে গেলেন দুজনেই।  অন্য সবার মতো ছেলের হাঁটা হবে না। হেঁটে হেঁটে যাওয়া যাবে না নির্দিষ্ট কোনো গন্তব্যে। তবে সেই ছোটোবেলা থেকেই সমাজের শত প্রতিকূলতা চেপে বসেছে। এরপরও থেমে থাকেননি। এই ছেলের নাম ইসমাইল হোসেন। তিনি এখন সরকারি তিতুমীর কলেজে রাষ্ট্রবিজ্ঞান বিভাগে পড়ছেন।

ইসমাইলের বাড়ি ময়মনসিংহের ফুলবাড়িয়া উপজেলায়। ছোটবেলায় বাবা মারা যায়। সংসারে তিন ভাই, তিন বোন।  দারিদ্রতা আর দুই পা না থাকা সত্ত্বেও কিভাবে পড়ালেখা চালিয়ে যাচ্ছেন এমন প্রশ্নের জবাবে ইসমাইল বলেন, জন্মের পর থেকে বিভিন্ন সমস্যা মোকাবিলা করে নিজেকে মানিয়ে নিয়েছি। দেশে অনেক প্রতিবন্ধী আছে যারা শারীরিক প্রতিবন্ধকতা থাকার কারণে পড়ালেখা করে না। কিন্তু ইচ্ছাশক্তি থাকলেই সব কিছু করা সম্ভব। 

এসএসসি পাসের পর ভর্তি হলেন গ্রামের একটি কলেজে। এরপর ভর্তি হলেন তিতুমীর কলেজে। একবেলা দুইবেলা না খেয়েও পড়ালেখা চালিয়ে গেছে। জীবনের বাঁকে বাঁকে এমন অনেক সময় এসেছে যে ইসমাইল চাইলেই পারতো অন্য প্রতিবন্ধী মানুষের মত ভিক্ষাবৃত্তি বেছে নিতে। কিন্তু যারা ইতিহাস গড়তে আসে তারা শত প্রতিকূলতাকে উপেক্ষা করে জীবনের উত্তাল সমুদ্রে ঝাঁপিয়ে পড়ে।

ইসমাইল হোসেনও জীবন যুদ্ধে প্রতিনিয়ত লড়ে যাওয়া এক সংগ্রামী। যে স্বপ্ন দেখে নিজেকে প্রমাণ করার, স্বপ্ন দেখে সমাজকে পরিবর্তনের। সে মানুষের করুণা নয় সম্মান চায়। সাহায্য নয় সুযোগ চায় তাকে প্রমাণ করতে দেয়ার। সমাজের একজন আদর্শ ব্যক্তি হয়ে এটাই প্রমাণ করতে শারীরিক ভাবে কিছুটা ভিন্ন হলেও স্বপ্নপূরণের সংগ্রামে তিনি অন্যদের মতোই অদম্য বা তারচেয়েও বেশি।

ভবিষ্যৎ পরিকল্পনার কথা জানতে চাইলে ইসমাইল বলেন, স্বপ্ন বিসিএস পাস করে একজন সচিব হবো। কারো সাহায্য চাইনা। একটা সুযোগ চাই। আর সুযোগ পেলেই দেশের জন্য নিজেকে উৎসর্গ করতে পারে। দেখিয়ে দিতে চাই শারীরিক প্রতিবন্ধকতা ও বাধা হতে পারে না৷ 

ইসমাইলরাও স্বপ্ন দেখে আমাদের স্বাভাবিক মানুষের মত। ছুটে চলতে পারে হার না মানা সৈনিকদের মত। তারা সমাজের বোঝা নয়। তারাও যে সমাজের সম্পদ। 

দৈনিক কিশোরগঞ্জ
দৈনিক কিশোরগঞ্জ
এই বিভাগের আরো খবর